শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
 
শিরোনাম: কাউন্টারে টিকিট কেটে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী       এমপি আনার হত্যায় এবার আওয়ামী লীগ নেতার দায় স্বীকার       সাবেক কর কমিশনার ওয়াহিদা রহমানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা        ঈদের পর নতুন সূচিতে চলবে মেট্রোরেল        শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শনিবার বন্ধ থাকবে কি না, সিদ্ধান্ত ঈদের পর        চার্জ গঠন বাতিল চেয়ে রিট করবেন ড. ইউনূস       বাংলাদেশের দুর্নীতি মোকাবিলায় যে ইঙ্গিত দিলেন ডোনাল্ড লু       


গরমে তরমুজ খাওয়া আসলেই উপকারী না ক্ষতিকর, যা বলছেন পুষ্টিবিদ
লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪, ৫:০২ PM

গ্রীষ্মের এই তাপদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন। গরমের এই সময় সবাই ঠান্ডাজাতীয় পানীয় কিংবা খাবারে ভরসা রাখেন। সেদিক থেকে খাবারের তালিকায় প্রথমেই থাকে মৌসুমী ফল তরমুজ। গ্রীষ্মের সময় তরমুজের বেশ চাহিদা থাকে। শরীর ঠান্ডা থাকে বলে পছন্দ অনেকের। কিন্তু স্বাস্থ্য সচেতনদের একাংশের মত, তরমুজ নিয়মিত খাওয়ার ফলে স্বাস্থ্য বাড়ার সম্ভাবনা থাকে। এছাড়াও কিছু শারীরিক সমস্যার কথা বলেন কেউ কেউ।

সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে বিভিন্ন মাধ্যমে যখন তরমুজ খাওয়ার ফলাফল নিয়ে এমন গুঞ্জন, সেই সময় বিষয়টি নিয়ে ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বললেন কলকাতা শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালের প্রধান পুষ্টিবিদ ডা. অরিত্র খাঁ। এবার তাহলে তার ভাষ্য অনুযায়ী গ্রীষ্মে তরমুজ খাওয়া সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।

পুষ্টির উৎস: তরমুজে ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, পটাশিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম রয়েছে প্রচুর। এসব উপাদান শরীরে পুষ্টির ঘাটতি পূরণে বেশ কার্যকর। আবার ভিটামিন সি, ভিটামিন ই, ক্যারোটিনয়েডস, লাইকোপেন শরীরকে বিভিন্ন জটিল সমস্যা থেকে রক্ষা করে। আবার এই ফলে বিদ্যমান ফ্লুইড শরীরের পানিশূন্যতাও পূরণ করে। এছাড়া হার্ট, চোখসহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের উপকারে আসে তরমুজ।

তরমুজ কি ওজন বাড়ায়: তরমুজ হচ্ছে লো ক্যালোরি ফ্রুটস বা খাবার। এই ফল খাওয়ার ফলে ওজন বাড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। বরং নিয়ম করে খেতে পারলে শরীরের ফ্যাট অনেক কমিয়ে ফেলা সম্ভব। এ জন্য ওজন বাড়ার ভয়ে তরমুজকে পরিহার না করে পুষ্টিবিদের পরামর্শে ওয়েট লস ডায়েটে রাখতে পারেন এই ফল।

জুস নয়: এমন অনেকেই আছেন যারা তরমুজ ‍জুস বা রস করে পান করেন। এতে এই রসের মধ্যে আলাদা চিনিসহ অন্যান্য উপাদান মিশ্রণ করা যায়। ফলে পানীয়তে ক্যালোরি ভ্যালু অনেকটা বেড়ে যায়। ফলে ওজন বাড়ার সম্ভাবনা থাকে। কারণ, যেকোনো হাই ক্যালোরি পানীয় পানে অল্পতেই স্বাস্থ্য বাড়ার সম্ভাবনা থাকে। এ জন্য স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে চাইলে তরমুজ কখনো জুস করে খাওয়া যাবে না।

ডায়াবেটিস রোগীরা কি তরমুজ খেতে পারবেন: অনেকেই মনে করেন ডায়াবেটিস রোগীরা তরমুজ খেতে পারবেন না। এর গ্লাইসেমিক ইনডেক্স বেশি থাকার কারণে অনেক সময় চিকিৎসকরাও ডায়াবেটিসে তরমুজ খেতে নিষেধ করে থাকেন। তবে ডা. অরিত্রের ভাষ্যমতে, ডায়াবেটিস রোগীরা তরমুজ খেতে পারবেন। কেননা, তরমুজের গ্লাইসেমিক ইনডেক্স বেশি হলেও এর গ্লাইসেমিক লোড ১০-এর নিচে। তরমুজ খেলে সুগার খুব একটা বাড়ে না। এ জন্য চাইলে ডায়াবেটিস রোগীরা তরমুজ খেতে পারেন।

দিনে কী পরিমাণ খাবেন: দিনে মোটামুটি ২৫০ গ্রামের মতো ফল খেতে পারেন। এর মধ্যে ১০০ থেকে ১৫০ গ্রাম তরমুজ খেলে খুব একটা সমস্যা হবে না। তবে যাদের কিডনিজনিত সমস্যা বা ফ্লুইড রেস্ট্রিকশন রয়েছে, তারা তরমুজ খাওয়ার আগে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন।







আরও খবর


 সর্বশেষ সংবাদ

কাউন্টারে টিকিট কেটে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী
এমপি আনার হত্যায় এবার আওয়ামী লীগ নেতার দায় স্বীকার
দেখতে ঘাসের চাঁদরে ঢাকা, আসলে স্কুল মাঠে পানিতে ভাসছে ক্ষুদিপানা
শেরপুরে মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে দর্জি শ্রমিকদের ধর্মঘট, ঈদের পোশাক তৈরি বন্ধ
বনবিভাগের ৯ কোটি টাকা নিয়ে উধাও রেঞ্জ কর্মকর্তা রবিউল আলম
আরো খবর ⇒


 সর্বাধিক পঠিত

কালীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত
ফ্রান্সে বাংলা ফোক গানের সম্রাজ্ঞী পাপিয়া
মালীগাঁও ইউনিয়নের উন্নয়নে নিবেদিত সোহেল আখন্দ
প্যারিসে বাংলাদেশ বিজনেস ফোরাম' ও 'ইউরো বাংলা বিজনেস এসোসিয়েশন' এর সাথে থ্রী এ আর মাল্টিমিডিয়া লিঃ
চট্রগ্রামে শপথ নেন লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা পরিষদে নির্বাচিত চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যানরা
প্রকাশক: এম এন এইচ বুলু
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মাহফুজুর রহমান রিমন  |   উপদেষ্টা সম্পাদক : রাজু আলীম  
বিএনএস সংবাদ প্রতিদিন লি. এর পক্ষে প্রকাশক এম এন এইচ বুলু কর্তৃক ৪০ কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ, বুলু ওশেন টাওয়ার, (১০তলা), বনানী, ঢাকা ১২১৩ থেকে প্রকাশিত ও শরীয়তপুর প্রিন্টিং প্রেস, ২৩৪ ফকিরাপুল, ঢাকা থেকে মুদ্রিত।
ফোন:০২৯৮২০০১৯-২০ ফ্যাক্স: ০২-৯৮২০০১৬ ই-মেইল: spnewsdesh@gmail.com